এই দল নিয়ে তিন জয়ই অলৌকিক মনে হচ্ছে: মুশফিক

খেলাধুলা ডেস্ক
নভেম্বর ২৯, ২০১৬
মুশফিকুর রহিম মুশফিকুর রহিম

আজ একেবারে বিস্ফোরক মেজাজে ছিলেন মুশফিকুর রহিম। সংবাদ সম্মেলনের শেষ দিকে এসে গায়ক আসিফ আকবরকে প্রবল পাল্টা আক্রমণ তো করেছেনেই। এর আগে নিজের দলের খেলোয়াড়দের ওপর ভয়াবহ ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন দায়হীন পারফরম্যান্সের জন্য

 

বরিশাল বুলস তো জয়ের স্রোতে ছিলো। এখন সমস্যাটা কী হচ্ছে?

আমাদের দলে এমন কোন বিস্ফোরক ব্যাটসম্যান নেই, যে একাই ম্যাচ জিতেয়ে দেবে। এজন্য দলের ২-৩ জন খেলোয়াড়কে তো ভালো খেলতে হয়।

আপনারা কী বুঝতে পারছেন, ঠিক কেনো পারফরম্যান্স আসছে না?

খেয়াল করলে দেখা যাবে আমাদের একজন ব্যাটসম্যান হয়তো ভালো খেলেছে। কিন্তু তাকে সাপোর্ট দেওয়ার মতো কেউ ছিল না। একদিন জীবন ভালো খেলেছেন, একদিন আবির ভাই একদিন হয়তো আমি ভালো খেলেছি। কিন্তু সাপোর্ট দেওয়ার মতো কেউ ছিল না। এটা না করলে খুব কঠিন হয়ে যায়।

ফিল্ডিংটা কী একটা সমস্যা তৈরী করছে?

অবশ্যই। প্রত্যেকটা দলেই ফিল্ডিংয়ে দেখা যায় ৫ থেকে দশটা রান সেভ করে। সেখানে আমরাই সবচেয়ে ধারাবাহিক দল যারা কিনা প্রত্যেক ম্যাচেই ১০-১৫ রান করে দেই। দুটি করে ক্যাচ মিস করি। টি-টোয়েন্টি এমন একটা ফরম্যাট যেখানে এক রানের জন্য ম্যাচ হারতে হয়। যেমন গত বছর আমি যে দলে খেলেছি ওখানে এক রানে দুটি ম্যাচ হেরেছি। সেখানে আপনি যদি এমন ১০-১৫ রান দিয়ে দেন তাহলে সেটা আসেল খুব কঠিন হয়ে যায় ফিরে আসার ক্ষেত্রে।

ফিল্ডিং তো কমিটমেন্টটা বোঝায়। দলের কমিটমেন্টে সমস্যা?

যে দল আছে সেটা নিয়ে যে তিনটা ম্যাচ জিতেছি সেটা আমার কাছে মনে হয় অলৌকিক কিছু।

এটা কী ম্যাচ হারার হতাশা থেকে মনে হচ্ছে?

টিম যে খারাপ, সেটা আমি বলছি না। টিমে যে নামগুলো আছে সেই অনুযায়ি তারা পারফরম্যান্স করতে পারছে না। সেই অনুযায়ি তো তাদেরকে পারফরম্যান্স করতে হবে। সত্যি কথা বলতে এই দল এমন না যে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার মতো। আমার মনে হয় এতোটুকু কোয়ালিটি আছে সেরা চারে যাওয়ার মতো দল।

ঠিক কোন বিভাগ নিয়ে বেশী হতাশ?

আমরা যে তিনটা ম্যাচ জিতেছি এমন না যে আমাদের ৬-৭ জন ভালো খেলেছে। আমরা কিন্তু ২-৩ ভালো খেলেছি, তোতেই কিন্তু জিতেছি। এটলিস্ট যারা আমরা ভালো করছিলাম তাদেরতো কন্টিবিউশন করা জরুরি ছিল। অন্যরা যারা আছে তারা সহযোগিতা করবে। সেদিক থেকে যদি না হয় তাহলে আসলে খুব কঠিন। বোলিং ইউনিট বলেন, ফিল্ডিং ইউনিট বলেন কিংবা ব্যাটিং ইউনিট বলেন আমাদের তিনটা বিভাগে খারাপ হয়েছে। মানুষের তো একটা বিভাগে ভালো হয়।

নাফিস ও আপনার উপর বেশী নির্ভরশীল হয়ে গেছে দলটা?

টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট এমনই, দলের ৭ জন তো আর রান করবে না। পুরো সিজনে দেখা যাবে ২-৩ জন ব্যাটসম্যান হয়তো রান করবে। তাদেরই বেশিরভাগ রান করা উচিত। এবং ম্যাক্সিমাম ম্যাচে তাদের কন্টিবিউট করা উচিত। সেদিক থেকে বলবো আমাদের অনেক ব্যাটসম্যান আছে যারা আউট অব ফর্ম। স্থানীয় যারা আছে তাদের মধ্যে আমরা সবাইকেই চেষ্টা করা হয়েছে। আমরা কারো কাছ থেকে তেমন সাপোর্ট পাইনি।

যারা ফর্মে আছেন, তাদের জন্য এটা তো আবার চাপ।

ব্যাক অব দ্য মাইন্ডে থাকে কেউ যদি রিস্ক নেয়, তাহলে আউট হলে বড় স্কোর গড়ার চান্স নেই। এটা একটি সমস্যা। জুটিটা খুব গুরুত্বপূর্ণ। দুট সাইড থেকে সাপোর্ট না আসলে খুব কঠিন। তখন বোলাররা বুঝে যায় আমাকে একটা রান দিয়ে অন্য সাইড থেকে আক্রমণ করবে। যেটা আমিও অধিনায়ক হলে এমনই করতাম। সবমিলিয়ে আমাদের জন্য কঠিন পরিস্থিতি।

 

Share this post