রাজশাহী কিংস: ফাইনালের পাঁচ তুরুপের তাস

উদয় সিনা
ডিসেম্বর ৮, ২০১৬
 চলুন জেনে নিই রাজশাহী কিংসের এমন পাঁচজন খেলোয়াড়ের সম্পর্কে। চলুন জেনে নিই রাজশাহী কিংসের এমন পাঁচজন খেলোয়াড়ের সম্পর্কে।

২৫ দিনের মাঠের লড়াই শেষে পাওয়া গেল কাঙ্খিত দুটি দল। শুক্রবার বিপিএলের চতুর্থ আসরের ফাইনালে মাঠে নামতে যাচ্ছে ঢাকা ডাইনামাইটস ও রাজশাহী কিংস। শক্তিমত্তার বিচারে দুটি দলই কেউ কারোর চেয়ে কম নয়। দেশি বিদেশি খেলোয়াড়দের সমন্বয়ে আসরের সেরা দল দুটিই ফাইনালে উঠেছে। দু’দলেই কয়েকজন খেলোয়াড় আছেন যারা যেকোন সময় ম্যাচের মোড় ঘুরিয়ে দেয়ার যোগ্যতা রাখেন। ফাইনালের মত ম্যাচে তাই তাদের দিকে বাড়তি নজর রাখতেই হয়।

চলুন জেনে নিই রাজশাহী কিংসের এমন পাঁচজন খেলোয়াড়ের সম্পর্কে।

১. সাব্বির রহমান

এবারের বিপিএলের একমাত্র সেঞ্চুরিয়ান রাজশাহীর সাব্বির রহমান টুর্নামেন্টের মাঝপথে খে&ই হারিয়ে ফেলেছিলেন। তবে সবশেষ ম্যাচে অপরাজিত ৪৩ রানের ইনিংসটি তাঁর ফর্মে ফেরার ইঙ্গিত দিচ্ছে। এখন পর্যন্ত ১৪ ম্যাচে ২৭.০০ গড়ে ৩৫১ রান করে সাব্বির আছেন সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহকের তালিকার তৃতীয় স্থানে। ভুলে গেলে চলবে না যে এই সাব্বির একজন খুনে মেজাজের ব্যাটসম্যান। কে জানে হয়ত ফাইনালে তিনিই ব্যাট হাতে রাজশাহীর তুরুপের তাশ হয়ে উঠতে পারেন।

২. সামিত প্যাটেল

এটা অনেকটা নিশ্চিত যে সামিত প্যাটেলের দিকে বাড়তি নজর রাখবে ঢাকার খেলোয়াড়রা। কারণ গ্রুপ পর্বে ঢাকাকে হারানো দুটি ম্যাচের নায়কই যে ছিলেন এই প্যাটেল। টুর্নামেন্টে ২৭১ রানের পাশাপাশি এই অলরাউন্ডারের নামের পাশে রয়েছে ১০ টি উইকেট। সেইসাথে ম্যান অব দ্য ম্যাচের পুরস্কারও পেয়েছেন তিনবার। সবমিলয়ে ফাইনালে ঢাকার দুশ্চিন্তার অন্যতম কারণ হয়ে উঠতে পারেন রাজশাহীর এই ধারাবাহিক পারফর্মার।

৩. জেমস ফ্রাঙ্কলিন

টুর্নামেন্টের মাঝপথে রাজশাহীর হয়ে খেলতে আসা ফ্রাঙ্কলিন প্রথমদিকে ডাগ আউটে বসেই সময় কাটিয়েছেন। কিন্তু পরে সুযোগ পেয়ে তা কাজে লাগাতে ভুল করেননি তিনি। ৫ ম্যাচে ৩১.০৪ গড়ে রাজশাহীর হয়ে তিনি করেছেন ১৫৭ রান যার মধ্যে রয়েছে একটি অর্ধশত। সবচেয়ে বড় বিষয় হলো তিনি আছেন ফর্মের তুঙ্গে। তাই ফাইনালে নিঃসন্দেহে তাঁর দিকে আলাদাভাবে তাকিয়ে থাকবে রাজশাহী কিংস।

৪. কেসরিক উইলিয়ামস

বল হাতে কিংসদের অন্যতম ভরসার প্রতীক কেসরিক উইলিয়ামস। মাত্র ৪ ম্যাচে তিনি সংগ্রহ করেছেন ৭ উইকেট। টুর্নামেন্টে তাঁর সেরা ফিগার ৪-০-১১-৪। বল হাতে খুব কৃপন প্রকৃতির তিনি। তাঁর স্লোয়ার ও অফ কাটারের বিপক্ষে তাই রান করতে সমস্যায় পড়তে হতে পারে ডিনামাইটস ব্যাটসম্যানদেরকে।

৫. ড্যারেন স্যামি

সবশেষে আসি রাজশাহী কিংসের অধিনায়ক ড্যারেন স্যামি প্রসঙ্গে। বিপিএলের একমাত্র বিদেশি অধিনায়ক স্যামি তাঁর দলকে সামনে থেকে নেতৃত্ব দিয়ে এই অবস্থানে নিয়ে এসেছেন। ব্যক্তিগত পারফরম্যান্সের পাশাপাশি মাঠে তাঁর নেতৃত্ব ছিল দেখার মত। টুর্নামেন্টে ১৩ ইনিংসে ব্যাট করে স্যামির সংগ্রহ ২৬৫ রান। বল হাতে নিয়েছেন ৫ উইকেট। দলের হয়ে সর্বোচ্চ ম্যান অব দ্য ম্যাচ হয়েছেন তিনবার। সম্প্রতি ব্যাট হাতে দারুন ছন্দে আছেন তিনি। প্রথম এলিমিনেটর ম্যাচ ২৭ বলে অপরাজিত ৫৫ রানের ইনিংস খেলে খাদের কিনারা থেকে একাই দলকে জয়ের বন্দরে ভেড়ান স্যামি।  তাই ড্যারেন স্যামিকে নিয়ে যে আলাদা হিসেব কষে রাখতে হবে ডাইনামাইটসের তা আর বলার অপেক্ষা রাখে না।

আসলে নিজস্ব শক্তির বিচারে দুদলের প্রতিটি খেলোয়াড়ের সামর্থ্য আছে ফাইনালের সবটুকু আলো নিজের দিকে টেনে আনার। ঠিক যেমনটা গত আসরের ফাইনালে করেছিল অলক কাপালি ম্যাচের শেষদিকে কুমিল্লাকে একাই জয়ের বন্দরে পৌঁছে দিয়ে। তবে যাই হোক। সব বিচার বিশ্লেষণকে ছাপিয়ে ব্যাটে-বলে একটি উপভোগ্য ফাইনালই এখন প্রতিটি ক্রিকেটভক্তের প্রত্যাশা।

Category : ফিচার
Share this post