মাশরাফি-গেইলদের সাথে খেলতে মুখিয়ে ম্যাককালাম

মাহিয়ান মিশুক
নভেম্বর ১৬, ২০১৭
ম্যাকক্যালামের পর চলে এসেছেন গেইলও ম্যাকক্যালামের পর চলে এসেছেন গেইলও

ব্রেন্ডন ম্যাককালাম আগেই চলে এসেছেন। এবার বৃহস্পতিবার সকালে এলেন ক্রিস গেইল। রংপুর রাইডার্স এখন তাই ষোলো আনা শক্তিশালী। নিউজিল্যান্ডের ব্রেন্ডন ম্যাককালাম বলেছেন, রংপুরের হয়ে প্রথমবারের মতো বিপিএল স্বাদ নিতে তিনি দারুণভাবে মুখিয়ে আছেন। অধিনায়ক মাশরাফির অধীনে খেলা বেশ উপভোগ করবেন বলেই বিশ্বাস করেন তিনি। ক্রিস গেইলকে সাথে নিয়ে রংপুরকে বড় কিছু এনে দেয়াই লক্ষ্য ম্যাককালামের।

কোচ টম মুডি আর অধিনায়ক মাশরাফি খানিক পরিকল্পনাও গুছিয়ে নিয়েছেন। ম্যাককালাম-গেইলরা আসায় একাদশের ধরণ শক্তি সামর্থ্য কোথায় গিয়ে ঠেকতে পারে, সেসব নিয়ে করছেন বিস্তর হিসাব-নিকাশ।

ম্যাককালাম-গেইলরা টি-টোয়েন্টির বড় আকর্ষণ, সেটা যে দেশের ঘরোয়া ক্রিকেট লিগ হোক না কেনো। ক্যারিয়ারে ২৯৭ ম্যাচে সাড়ে আটহাজারের কাছাকাছি রান করেছেন ম্যাককালাম। ৪৩ টি হাফ সেঞ্চুরি ও সাতটি টি-টোয়েন্টি সেঞ্চুরির মালিক তিনি।এতো বড় তারকা রাইডার্সদের হয়ে প্রথমবারের মতো খেলতে নামছেন বিপিএলে।

ম্যাককালাম বলেন, ‘প্রথমবারের মতো বিপিএল খেলবো এবার। রংপুর রাইডার্সের হয়ে নামতে পেরে আনন্দিত আমি। আমি বেশ এনজয় করছি। দলটা বেশ ব্যালেন্সড।’

মাশরাফির অধিনায়কত্বের প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘এখানে মাশরাফির মতো ক্যাপ্টেন আছে। টিম ম্যানেজমেন্টও দারুণ আন্তরিক। আশা করি এখনো ঘুরে দাঁড়ানোর প্রচুর সময় পড়ে আছে। আমি আমার বিধ্বংসী ব্যাটিংটাই করার চেষ্টা করবো। চেষ্টার কোনো কমতি থাকবে না।’

সব ঠিকঠাক থাকলে গেইল আর ম্যাককালাম এক সাথে নামবেন ইনিংসের সূচনা করতে। আগে কলকাতা নাইট রাইডার্সের হয়েও দু’জন এক সাথে ইনিংসের সূচনা করেছিলেন।

ম্যাককালাম বলেন, ‘ক্রিস গেইলের সঙ্গে ওপেন সবসময়ই রোমাঞ্চকর। ওর দারুণ খেলে। আশা করি, আমাদের দিনে যে কোন প্রতিপক্ষই চ্যালেঞ্জে পড়তে সক্ষম। বড় ইনিংস খেলতে পারে রংপুরেরর জন্য লাভ হবে নিশ্চয়ই।’

এদিকে ক্রিস গেইল ঢাকায় পা রেখেই বিশ্রামে আছেন। ব্যাটিং দানবকে পেয়ে টিম ম্যানেজমেন্ট বেজায় খুশি, তা আর বলার অপেক্ষা রাখেনা। শনিবার কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের সঙ্গে ম্যাচ রংপুরের।

Category : খবর
Share on your Facebook
Share this post