টি-টোয়েন্টিতে বাংলাদেশ শক্তিশালী: ডি কক

খেলাধুলা ডেস্ক
অক্টোবর ২৪, ২০১৭
কুইন্টন ডি কক কুইন্টন ডি কক

টেস্ট আর ওয়ানডেতে বাংলাদেশ এক রকম ধরাশায়ী হয়েছে। তবে, টি-টোয়েন্টির লড়াইটা এত সহজ হবে না বলেই মনে করছেন দক্ষিণ আফ্রিকার ডি কক। তার দাবী ক্রিকেটের সবচেয়ে ছোট এই ফরম্যাটে বাংলাদেশ যথেষ্ট শক্ত দল।

আগামী ২৬ অক্টোবর, বৃহস্পতিবার থেকে ব্লুমফন্টেইনে শুরু হবে বাংলাদেশ-দক্ষিণ আফ্রিকার দুই ম্যাচের টি-২০ সিরিজ। পচেফস্ট্রুমে ২৯ অক্টোবর হবে সিরিজের দ্বিতীয় ও শেষ টি-টোয়েন্টি ম্যাচ। এর মধ্য দিয়ে শেষ হবে দু:স্বপ্নের টেস্ট সিরিজের। টি-টোয়েন্টি সিরিজ সামনে রেখে ডি কক মনে করছেন, এটাই বাংলাদেশের সেরা ফরম্যাট।

দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজে লড়াইয়ে ছিটেফটাও দেখাতে পারেনি বাংলাদেশ। পচেফস্ট্রুমে সিরিজের প্রথম টেস্ট ৩৩৩ রানে হারের পর ব্লুমফন্টেইনে অনুষ্ঠিত দ্বিতীয় ম্যাচে ইনিংস ও ২৫৪ রানের ব্যবধানে হারে মুশফিকুর রহমের দল। টেস্ট সিরিজে বাংলাদেশের এমন ফল গ্রহণযোগ্য হলেও, ওয়ানডেতে বাংলাদেশের কাছে প্রত্যাশা ছিলো অনেক বেশি। কারন ওয়ানডেতে শক্তিশালী এক দল বাংলাদেশ। গেল দু’বছরে বাংলাদেশের পারফরমেন্স তেমনই বলছিলো।

কিন্তু দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজেও ব্যর্থতার ষোলকলা প্রদর্শন করেছে বাংলাদেশ। তিন ম্যাচের কোনটিতেই সেরা পারফরমেন্স দেখাতে পারেনি সফরকারীরা। প্রথম ম্যাচে ১০ উইকেটের বড় ব্যবধানে হারের পর দ্বিতীয় ও তৃতীয় ওয়ানডেতে যথাক্রমে ১০৪ ও ২০০ রানের ব্যবধানে হারের তিক্ত স্বাদ পায় বাংলাদেশ।

ওয়ানডে সিরিজে ১০০৪ রান দিয়েছেন বাংলাদেশের বোলাররা। নিজেদের ক্রিকেটে তিন ম্যাচের সিরিজে সবচেয়ে বেশি রান দেয়ার নয়া রেকর্ড গড়ে মাশরাফি-তাসকিন-সাকিব-রুবেলরা। শুধুমাত্র বোলাররাই নয়, ব্যাট হাতে ব্যর্থ ছিলেন ব্যাটসম্যানরাও। একমাত্র মুশিফকুর রহিমই ১টি করে সেঞ্চুরি ও হাফ-সেঞ্চুরিতে দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ১৭৮ রান করেন।

টেস্ট ও ওয়ানডে সিরিজে নিজেদের মেলে ধরতে না পারলেও, টি-টোয়েন্টি সিরিজে বাংলাদেশ দল ভালো করবে বলে মনে করেন দক্ষিণ আফ্রিকার ডি কক, ‘টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটে শক্তিশালী দল বাংলাদেশ। এই ফরম্যাটে ভালো করার জন্য সর্বাত্মক চেষ্টা তারা করবে। ছোট ফরম্যাটে তারা সবসময়ই ভালো ক্রিকেট খেলে এবং এখানে নতুন ভাবেই শুরু করবে বাংলাদেশ।’

বাংলাদেশের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজে সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক ডি কক। ৩ ম্যাচে ১টি করে সেঞ্চুরি ও হাফ-সেঞ্চুরিতে ২৮৭ রান করে সিরিজ সেরা হন তিনি। সিরিজের প্রথম ম্যাচে অনবদ্য ১৬৮ রান করেন ডি কক। তাই পুরো সিরিজে নিজের পারফরমেন্সে বেশ খুশী ডি কক বলেন, ‘ইংল্যান্ডের বিপক্ষে সিরিজে আমি ভালো করতে পারিনি। তাই বাংলাদেশের বিপক্ষে সিরিজে আমার ভালো করার তাগাদা ছিলো। বাংলাদেশের বিপক্ষে তিন ম্যাচেই স্বাচ্ছন্দ্যে ব্যাট করেছি। প্রথম ম্যাচে ১৬৮ রান আমার আত্মবিশ্বাস অনেকাখানি বাড়িয়ে দিয়েছে। নিজের এমন পারফরমেন্স ভবিষ্যতেও অব্যাহত রাখতে চাই।’

Category : খবর
Share on your Facebook
Share this post