তবুও বিশ্বজয়ের স্বপ্ন দক্ষিণ আফ্রিকার

খেলাধুলা ডেস্ক
জুন ১২, ২০১৭
মনোবল হারাচ্ছে না ‘চোকার’রা মনোবল হারাচ্ছে না ‘চোকার’রা

বিশ্বকাপ, চ্যাম্পিয়নস ট্রফি কিংবা টি টোয়েন্টি বিশ্বকাপ, আইসিসির যে কোনো বড় আসরে চাপের মূহুর্তে হুড়মুড়িয়ে ভেঙে পড়ার গল্প যখনই বলা হয়, দক্ষিণ আফ্রিকার সিংহভাগ জুড়ে থাকে। এবারের আইসিসি চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতেও এর ব্যত্যয় ঘটেনি। বাঁচামরার লড়াইয়ে ভারতের কাছে আট উইকেটের বিশাল ব্যবধানে হেরে টুর্নামেন্ট থেকে বিদায় নিয়েছে প্রোটিয়ারা।

এ হারের পর প্রোটিয়া অধিনায়ক এবি ডি ভিলিয়ার্স আশায় বুক বাঁধছেন ২০১৯ বিশ্বকাপ নিয়ে। বিশ্বাস রাখছেন স্কোয়াডে থাকা প্রতিটি খেলোয়াড়ের উপর, তাদের সামর্থ্যের উপর। আশা করছেন তার দল এই চ্যাম্পিয়নস ট্রফির ব্যর্থতাকে ২০১৯ বিশ্বকাপ সাফল্যে রূপান্তরিত করতে পারবে।

দক্ষিণ আফ্রিকান অধিনায়ক বলেন, ‘কারণ, আমি একজন ভালো অধিনায়ক। আমি দলটাকে সামনে নিয়ে যেতে পারবো। আমি বিশ্বাস করি এ দলটাকে আমি বিশ্বকাপ জেতাতে পারবো।’

২০১১ বিশ্বকাপের পর থেকে দক্ষিণ আফ্রিকার অধিনায়কের দায়িত্ব পালন করছেন ভিলিয়ার্স। মাঝে ২০১৩ সালে টি টোয়েন্টির অধিনায়কত্ব ছেড়ে দেন, আর টেস্টের অধিনায়কত্ব ছাড়েন কদিন আগে। ওয়ানডে আর টি-টোয়েন্টি ফরম্যাট মিলিয়ে ১৩ টি আইসিসি ইভেন্টে অংশগ্রহণ করেছেন এবি ডি ভিলিয়ার্স, যার একটিতেও বিজয়ীর হাসি হাসতে পারেননি।

ভিলিয়ার্স বলেন, ‘আমরা প্রত্যেকটি ইউনিটে যথেষ্ট প্রস্তুতি নিয়ে এসেছিলাম, কোনো প্রকারের ত্রুটি রাখিনি প্রস্তুতিতে। কন্ডিশনের সাথে মানিয়ে নিতে ক্যাম্পের পরে ক্যাম্প করেছি, কঠোর পরিশ্রম করেছি, দলের সবাই একে অপরকে সাহায্য করেছি, বিশ্বাস রেখেছি একে অন্যের উপর, কিন্তু কিছু কারণে একই ভাগ্য বারবার বিরণ করতে হচ্ছে আমাদের!’

ভারতের বিপক্ষে ম্যাচে ভেঙে পড়ার ব্যাখ্যা দিয়ে ভিলিয়ার্স বলেন, ‘ধৈর্য্য কিংবা মনোযোগের অভাব ছিলোনা দলের কারো মাঝে। একাদশের প্রতিটি সদস্য যথেষ্ট মনোযোগী এবং ধৈর্যশীল ছিলো ম্যাচে। কিছু ভুল সিদ্ধান্ত, কিছু ভুল শটের খেসারত দিতে হয়েছে টুর্নামেন্ট থেকে ছিটকে গিয়ে।’

অথচ, দক্ষিণ আফ্রিকা টুর্নামেন্টে পা রেখেছিলো দারুণ ফর্মের তুঙ্গে থেকে। শেষ বারো মাসের দারুণ ওয়ানডে পারফরমেন্সের কারণে র‍্যাংকিংয়ের শীর্ষেও আছে তারা!

সামনে দক্ষিণ আফ্রিকার লক্ষ্য কী? হতাশা নিয়ে ভিলিয়ার্স জবাব দিলেন, ‘পরের অ্যাসাইনমেন্ট নিয়ে এখনো কিছু ভাবিনি, আপাতত আমাদের ভাবনাজুড়ে এ ধাক্কা থেকে বের হওয়া যায় কিভাবে সে চিন্তাই আছে, কারণ এ হারটা আমাদেরকে খুব বাজেভাবে আঘাত করেছে। পরের টুর্নামেন্টে আমাদের ভাবনা কি হবে তা নিয়েও ভাবছিনা আপাতত।’

Category : খবর
Share on your Facebook
Share this post